মিয়ানমারে অন্ত্যেষ্টিক্রিয়ায় গুলি চালিয়েছে সেনাবাহিনী

মিয়ানমারে নিরাপত্তা বাহিনীর গুলিতে আরো দুইজন নিহত হয়েছেন বলে জানিয়েছেন প্রত্যক্ষদর্শীরা। এরমধ্যে শনিবার দেশটিতে প্রায় দুই মাস ধরে চলা বিক্ষোভে সবচেয়ে বেশি নিহত হয়েছেন। ১১৪ জনের মৃত্যু হয় বলে স্থানীয় সংবাদমাধ্যম থেকে জানা যায়। এ নিয়ে দক্ষিণ এশিয়ার দেশটিতে এ পর্যন্ত ৪৫৯ জন নিহত হয়েছেন নিরাপত্তা বাহিনীর গুলিতে।

এদিকে শনিবার নিহতদের একজনের অন্ত্যেষ্টিক্রিয়ায়ও গুলি চালিয়েছে নিরাপত্তা বাহিনী। রোববার প্রত্যক্ষদর্শীরা সংবাদমাধ্যমকে এ কথা জানিয়েছেন। খবর রয়টার্সের

রয়টার্সের সঙ্গে কথা বলা তিন প্রত্যক্ষদর্শী ইয়াঙ্গুনের কাছে বাগো শহরে শনিবার নিহত ২০ বছর বয়সী শিক্ষার্থী থায়ে মং মংয়ের অন্ত্যেষ্টিক্রিয়া অনুষ্ঠানে রোববার নিরাপত্তা বাহিনীর গুলির ঘটনায় হতাহতের কোনো ঘটনা ঘটেছে কি-না, তাৎক্ষণিকভাবে তা নিশ্চিত করতে পারেননি।

থায়ে মং মংয়ের শেষকৃত্যে যোগ দেওয়া আয়ে নামে এক নারী বলেন, যখন আমরা তার জন্য বিপ্লবের গান গাইছিলাম, তখনই নিরাপত্তা বাহিনীর সদস্যরা এসে আমাদের দিকে গুলি ছোড়েন। গুলির মুখে সেখানে থাকা সবাই পালিয়ে যান, আমরাও পালিয়ে যাই।

প্রতিবেদন বলছে, রোববার মিয়ানমারে পৃথক দুই গুলির ঘটনায় আরও দুই বিক্ষোভকারী নিহত হয়েছেন বলে প্রত্যক্ষদর্শীদের পাশাপাশি জানিয়েছে স্থানীয় গণমাধ্যমগুলোও। রাতে নেপিডোর কাছে একটি এলাকায় বিক্ষোভকারীদের ওপর নিরাপত্তা বাহিনীর গুলিতে একজনের মৃত্যু হয়, জানিয়েছে মিয়ানমার নাও।

Spread the love

পাঠক আপনার মতামত দিন