‘অযোগ্য’ পাপনের ‘নির্লজ্জ’ বোর্ডকে সম্মোধন করে নতুন বার্তা দিলেন সাবের হোসেন

নিউজ২৪লাইন:
সুপার টুয়েলভে টানা পাঁচ ম্যাচ হেরে চলমান টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ থেকে বিদায় নিয়ে দেশে ফিরেছে বাংলাদেশ দল। তবে বাংলাদেশের ছন্নছাড়া ব্যাটিং চোখে পড়েছে সারাবিশ্বের।

তাতে হতাশাজনক মন্তব্য ছাড়া অন্য কিছুই ছিল না। বড় স্বপ্ন নিয়ে টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে খেলতে গিয়েছিল বাংলাদেশ। সাম্প্রতিক ফর্মের বিচারে সেমিফাইনাল তো বটেই, চ্যাম্পিয়ন হওয়ারও সামর্থ্য রাখে টাইগাররা, এমনটা মনে করছিলেন অনেকে।

কিন্তু বিশ্বকাপের মূল আসরে গিয়ে দেখা গেলো উল্টো চিত্র। দেশকে অবিশ্বাস্য কিছু এনে দেওয়া তো দূরে, নিজেদের সামর্থ্যটুকুও দেখাতে পারলেন না মাহমুদউল্লাহ-মুশফিকরা।

সুপার টুয়েলভের ৫ ম্যাচের ৫টিই হেরেছে বাংলাদেশ ক্রিকেট দল। শ্রীলঙ্কা আর ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে কিছুটা প্রতিরোধ গড়া গেলেও ইংল্যান্ড, দক্ষিণ আফ্রিকা আর অস্ট্রেলিয়ার সামনে দাঁড়াতেই পারেনি টাইগাররা৷

বিশ্বকাপ মিশনের শেষ ম্যাচে অজিদের বিপক্ষে তো হারার সাথে সাথে এক লজ্জাজনক রেকর্ডেরও জন্ম দিয়েছেন তারা৷ আর দলের এই বাজে অবস্থার দায়ভার বিসিবি প্রেসিডেন্ট নাজমুল হাসান পাপনের কাঁধেই দিলেন বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের সাবেক সভাপতি সাবের হোসেন চৌধুরী।

১৯৯৬ থেকে ২০০১ সাল পর্যন্ত বিসিবির সভাপতি ছিলেন সাবের হোসেন। তার সময়েই ২০০০ সালের জুন মাসে বাংলাদেশ আইসিসির পূর্ণ সদস্য পদ এবং টেস্ট স্ট্যাটাস পায়।
নিজের টুইটার অ্যাকাউন্টে পাপন ও তার বোর্ডকে রীতিমত ধুয়ে দিয়েছেন তিনি। সাবের হোসেন লিখেছেন, ‘জনাব পাপনের অধীনে বাংলাদেশ ৪টা বিশ্বকাপ খেলে ফেললো। দিনকে দিন অবস্থা খারাপ থেকে আরও খারাপ হয়েছে। সবচেয়ে বেশি সময় ধরে থাকা বিসিবির সভাপতি সবচেয়ে অযোগ্যও বটে।’

বিসিবির সাবেক সভাপতি যোগ করেন, ‘দোষটা সবসময় অন্য কারো হয়, কিন্তু তিনিই আমাদের ক্রিকেটটাকে মাটিতে নামিয়েছেন। লজ্জা লাগে যে আমাদের এমন একটা নির্লজ্জ ক্রিকেট বোর্ড রয়েছে।’

Spread the love

পাঠক আপনার মতামত দিন