দামি মদ নিতে না দেওয়ায় আমাকে অভিযুক্ত করা হয়েছে : গ্রেফতারের আগে নাসির।

ঢাকা মহানগর গোয়েন্দা পুলিশ-ডিবি ধর্ষণ ও হত্যা চেষ্টার অভিযোগে চলচ্চিত্র নায়িকা পরীমণির মামলা দায়েরের পর এজাহারভুক্ত ১ নম্বর আসামি নাসির উদ্দিন মাহমুদকে গ্রেফতার করেছে। রাজধানীর উত্তরা এলাকা থেকে আজ সোমবার (১৪ জুন) তাকে গ্রেফতার করা হয়। গ্রেফতারের আগে নাসির উদ্দিন দাবি করেন, দামি মদ নিতে না দেওয়ায় তাকে অভিযুক্ত করা হয়েছে।

তিনি গণমাধ্যমকে বলেন, ঘটনার রাতে বোট ক্লাবে মদ্যপ অবস্থায় ঢুকে পরীমণিসহ কয়েকজন। এসময় তাদের সঙ্গে থাকা এক ছেলে উচ্ছৃঙ্খল আচরণ করেছিল। আর তারা যখন রাতে ক্লাবে প্রবেশ করে তখন সিকিউরিটি অফিসাররাও ছিলেন না। নাসির উদ্দিন মাহমুদ বলেন, ঘটনার রাতে আমি উপস্থিত ছিলাম। আমি বোট ক্লাবের একজন পরিচালক। আমি যখন রাতে বের হয়ে যাচ্ছিলাম, তখন পরীমণিসহ কয়েকজনকে ক্লাবের ভেতরে ঢুকতে দেখি। যারা এসেছিল সবাই মদ্যপ অবস্থায় ছিল।

আমি কমপ্লিটলি ভিকটিমাইজড’ উল্লেখ করে নাসির উদ্দিন আরও বলেন, ক্লাবের ভেতরে ঢুকেই বারের রিসিপশনে চলে যায় তারা। সেখানে দামি মদ ছিল। সেসব দামি দামি মদ তারা নিয়ে যাওয়ার চেষ্টা করছিল। আপনার বিরুদ্ধেই কেন অভিযোগ পরীমণির-এর ব্যাখ্যা দিতে গিয়ে নাসির উদ্দিন বলেন, তারা ড্রিঙ্কস নিয়ে যেতে চেয়েছিল। আর তারা তা নিয়ে যেতে পারেনি। আমার ধারণা, এই ক্ষোভ থেকেই আমাকে অভিযুক্ত করা হয়েছে।

Spread the love

পাঠক আপনার মতামত দিন