শরীয়তপুরের যুগান্তরের সাংবাদিকের বিরুদ্ধে অপপ্রচার ৯ জনের বিরুদ্ধে মামলা

ইয়ামিন কাদের নিলয়
বিশেষ প্রতিনিধি

শরীয়তপুরে দৈনিক যুগান্তরের ভেদরগঞ্জ প্রতিনিধি শাকিল আহম্মেদের বিরুদ্ধে ফেসবুকে অপপ্রচারে ঘটনায় ৯জনের বিরুদ্ধে আদালতে মামলা দায়ের করেছেন ঐ সংবাদকর্মী। গতকাল শরীয়তপুর চীফ জুডিশিয়াল ম্যাজিষ্ট্রেট কোর্টে মামলাটি দায়ের করেন তিনি। মামলার আসামীরা হলেন, (১) তৌহিদুল ইসলাম ঢালী, পিতাঃ মোসলেম ঢালী, সাং-সখিপুর ঢালী কান্দি। (২) ইয়াসিন খান, পিতাঃ হাকিম খান, গ্রামঃ ঢালীকান্দি, সখিপুর। (৩) ইমরান হোসেন, পিতাঃ মোয়াজ্জেম বকাউল, পূর্ব বকাউল কান্দি, কোদালপুর, গোসাইরহাট। (৪) শাহাদাত বেপারী, পিতাঃ ইয়াকুব বেপারীর কান্দি, ডিএমখালী। (৫) শামীম সরদার, পিতাঃ ওসমান সরদার গ্রামঃ মাঝি কান্দি, সখিপুর। (৬) ইদ্রিস আলী প্রধানীয়া, পিতাঃ হাবিবুল্লাহ প্রধানীয়া, সাং- কাননগো সরকার কান্দি, উত্তর তারাবুনিয়া, সখিপুর। (৭) হৃদয় হাসান (২৪) পিতাঃ মজিবল হক সরকার সাংঃ নুরু মাঝির বাজর, উত্তর তারাবুনিয়া। (৮) খান বাহাদুর কাজী, পিতাঃ ওমর আলী কাজী, সাং-কাজীকান্দি, চরভাগা, সখিপুর। (৯) তহুরা বেগম, স্বামীঃ আলী আহমেদ বকাউল, সাং-সরকার কান্দি, উ. তারাবুনিয়া।
এ ছাড়া একই ঘটনায় আরও অন্য ৪জনের বিরুদ্ধে সাইবার সিকিউরিটি আইনে মামলার আবেদন করেছেন তিনি।

মামলার বাদী শাকিল আহম্মেদ বলেন, আসামীরা পরস্পর যোগসাজসে, আমাকে সামাজিক ভাবে হেয় করার উদ্দেশ্যে একটি পত্রিকার লোগো ব্যবহার করে মিথ্যা, কুরুচিপূর্ণ ও মানহানিকর তথ্য ফেসবুকে প্রকাশ করেছেন। যা আমার জন্য অস্বস্তিকর ও মানহানিকর। পরে আমার সিনিয়র, সৌভাকাঙ্খী ও অফিসের সাথে পরামর্শক্রমে তাদের বিরুদ্ধে আদালতে মামলাটি দায়ের করেছি।
এ বিষয়ে ঐ সংবাদকর্মীর আইনজীবী বলেন, মহামান্য আদালত মামলাটি ডিবি পুলিশের কাছে হস্তান্তর করেছে। এছাড়া বাদী একটি আইসিটি আইনে মামলার আবেদন করেছে।

Spread the love

পাঠক আপনার মতামত দিন