শরীয়তপুরে প্রবাসীর বাড়িতে হামলা-মারধরের  অভিযোগ

আশিকুর রহমান হৃদয় শরীয়তপুর থেকে ঃ

শরীয়তপুরের ডামুড্যায় জাকির আকন নামে এক ইটালি প্রবাসীর বাড়িতে হামলা ভাঙচুর ও তাঁর পরিবারের লোকজনকে মারধরের অভিযোগ পাওয়া গেছে।

গত বৃহস্পতিবার রাতে উপজেলার দারুলআমান ইউনিয়নের নাদ্রা গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। এ ঘটনায় প্রবাসীর ভাই ইলিয়াছ আকন বাদী হয়ে ডামুড্যা থানায় লিখিত অভিযোগ করেছেন।

থানায় অভিযোগ ও স্থানীয় সুত্রে জানা যায়, ডামুড্যা উপজেলা দারুলআমান ইউনিয়নের নাদ্রা গ্রামের ইটালি প্রবাসী মো: জাকির আকনের পরিবারের সাথে জমি নিয়ে একই গ্রামের মুনতাজ উদ্দিন ফকিরের সাথে বিরোধ চলে আসছিলো। তারই জের ধরে গত বৃহস্পতিবার রাতে ফারুক ফকির ( ৩০) মুনতাজ উদ্দিন ফকির (৫০) কামাল ফকির সহ ৪/৫ জন ওই প্রবাসীর বাড়িতে হামলা ও পরিবারের লোকজনকে মারধর করে। হামলায় প্রবাসী মো: জাকির আকনের বোন আয়েশা (৩৫) কাজল ( ২৮) এবং বৃদ্ধ চাচী হালিমা ( ৭০) আহত হয়। পরে স্থানীয়রা আহতদের উদ্ধার করে ডামুড্যা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করান।

ভুক্তভোগী ওই প্রবাসীর ভাই ইলিয়াছ আকন বলেন, মুনতাজ উদ্দিন ফকিরের সাথে আমাদের জমি নিয়ে বিরোধ। আমার ভাই প্রবাসী সেই টাকায় আমরা এই বাড়ীটি নির্মাণ করি। কিন্তু মাঝে মধ্যেই ফারুক ফকির তাঁর লোকজন নিয়ে আমাদের বাড়ীর কাজে বাঁধা দেয়। ওইদিন আমাদের বাড়ীর উঠানে এসে গালাগাল করে। এসময় প্রতিবাদ জানালে কোনকিছু বুঝে উঠার আগেই আমার দুই বোন ও চাচীর উপর হামলা চালায়। এতে আমার বোন মারাত্মক ভাবে আহত হয়। এখনো তার চিকিৎসা চলছে। আমি এবিষয়ে ডামুড্যা থানায় অভিযোগ দিয়েছি। আমি চাই প্রশাসন তদন্ত করে তাদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেক।

স্থানীয় প্রতিবেশী কাদির আকন বলেন,ঘটনার সময় আমি বাড়িতে ছিলাম। হটাৎ মারামারি দেখে আমি ও আমার মা এগিয়ে গিয়ে ছাড়ানোর চেষ্টা করি। কিন্তু মুনতাজ উদ্দিন ফকিরের লোকজন উল্টো আমার মায়ের উপর হামলার চালায়। এরপর আমি আমার মাকে নিয়ে হাসপাতালে চলে যা-ই। আমি এর সুষ্ঠু বিচার চাই।

এবিষয়ে অভিযুক্ত মো:ফারুক আকন বলেন,আমি এবং আমার লোকজন তাদের ওপর হামলা করে নি। তাদের সাথে আমাদের জমি নিয়ে বিরোধ এটা সত্য। কিন্তু মারামারির বিষয়টি মিথ্যা।

এ বিষয়ে ডামুড্যা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) এমারত হোসেন বলেন, প্রবাসীর বাড়িতে হামলার ঘটনায় থানায় অভিযোগ করা হয়েছে। তদন্ত করে অভিযুক্তদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

Spread the love

পাঠক আপনার মতামত দিন