করোনা উপসর্গ নিয়ে মৃত্যুবরন করা গৃহবধূর লাশ দাফন দিলেন ভেদরগঞ্জ থানা পুলিশ

আমান আহমেদ সজীব,শরীয়তপুরের প্রতিনিধি :
শরীয়তপুরের ভেদরগঞ্জে করোনা উপসর্গ নিয়ে মৃত্যুবরণ করা আসমা বেগম (৪৫) নামে এক গৃহবধূর লাশ পরিবারের লোকজন গ্রহণ না করায় দাফন করেছে পুলিশ।

বৃহস্পতিবার (১৫ জুলাই ) ভেদরগঞ্জ থানা পুলিশের উদ্যোগে ও ইসলামিক ফাউণ্ডেশন ভেদরগঞ্জ শাখার সহযোগিতায় তাদের নিজস্ব কবরস্থানে দাফনের ব্যবস্থা করা হয়।
এর আগে,তিনি ৭ জুলাই করোনা পজিটিভ বাবার মৃত্যুর সংবাদ পেতে গ্রামে আসেন।

পরবর্তীতে শরীরে ব্যথা ও জ্বর অনুভব করায় ১৩ জুলাই ভেদরগঞ্জ স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে করোনা পরিক্ষা করান এবং জানতে পারেন তিনি করোনা পজিটিভ। গৃহবধূ আসমা বেগম শরীয়তপুর জেলার ভেদরগঞ্জ থানার কাঁইচকুড়ি গ্রামের দেলোয়ার হোসেন ঢালীর স্ত্রী।

ভেদরগঞ্জ থানা পুলিশের মিডিয়া সমন্বয়ক ও ভেদরগঞ্জ থানার এস আই আনিচুর রহমান এসব তথ্য নিশ্চিত করেছেন।
পরিবারের সদস্য জানায়, বাবার মৃত্যুর সংবাদ পেয়ে গ্রামে আসেন আসমা বেগম। তিনি পরিবারের সঙ্গে ঢাকায় বসবাস করতেন। ১৫ জুলাই থেকে জ্বর, শরীর ব্যথা,কাশি, বমি ও খাবারে অরুচিসহ বিভিন্ন লক্ষণ দেখা দেয়। পরিবারের সদস্য”রা আরও জানান হঠাৎ মাথা ব্যথা ও শ্বাসকষ্টজনিত কারণে শরীয়তপুর সদর হাসপাতালের মেডিসিন ওয়ার্ডে ভর্তি হন তিনি। বৃহস্পতিবার শ্বাসকষ্ট বেড়ে গেলে মৃত্যুর কোলে ঢলে পড়েন। করোনায় তার মৃত্যু হয়েছে এমন ভয়ে স্বামীর পরিবার ও বাবার বাড়ির লোকজন লাশ গ্রহণ করতে রাজি হননি। পরে ভেদরগঞ্জ থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) এ.বি.এম রাশেদুল বারী”র নির্দেশে ভেদরগঞ্জ থানা পুলিশ লাশ গ্রহণ করেন পরবর্তীতে মৃত আসমা বেগমের শশুর বাড়িতে তাদের নিজ কবরস্থানে জানাজা শেষে লাশ দাফন করে।

Spread the love

পাঠক আপনার মতামত দিন