শরীয়তপুরে সাংবাদিকের উপর সন্ত্রাসীর হামলার প্রতিবাদে বিভিন্ন সংগঠনের নিন্দা

নিউজ২৪লাইন:
শরীয়তপুরে
মারধরের ভিডিও ধারণ করায় সাংবাদিকের ওপর হামলা
এটিএন বাংলা, এটিএন নিউজ ও বাংলাদেশ প্রতিদিনের শরীয়তপুর জেলা প্রতিনিধি উপর শরীয়তপুর ইলেক্ট্রনিক মিডিয়া জার্নালিস্ট অ্যাসোসিয়েশনের সভাপতি
রোকনুজ্জামান পারভেজ এর উপর
ওপর সন্ত্রাসী হামলার প্রতিবাদে শরীয়তপুরে বিভিন্ন সামাজিক সংগঠনের প্রতিবাদ ও নিন্দা।

(২০ সেপ্টেম্বর) সোমবার দুপুর সাড়ে ১ টার দিকে পালং সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের পাশে ওই সাংবাদিকের ব্যবসা প্রতিষ্ঠানে ঢুকে তার ওপর হামলা চালানো হয়। পরে তাকে উদ্ধার করে শরীয়তপুর সদর হাসপাতালে ভর্তি করেন স্থানীয়রা।

আহত সাংবাদিক রোকনুজ্জামান পারভেজ এটিএন বাংলা, এটিএন নিউজ ও বাংলাদেশ প্রতিদিনের শরীয়তপুর প্রতিনিধি হিসেবে কাজ করছেন। এছাড়া শরীয়তপুর ইলেক্ট্রনিক মিডিয়া জার্নালিস্ট অ্যাসোসিয়েশনের সভাপতি হিসেবেও দায়িত্ব পালন করছেন তিনি।

ওই সাংবাদিক এবং প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, দুপুরে রোকনুজ্জামান পারভেজ তার ব্যবসা প্রতিষ্ঠানে বসে ছিলেন। এসময় ২০/২৫ জন মিলে এক নারীকে রড, লাঠি দিয়ে মারধর করছিল। এক পর্যায়ে তার দোকানে আশ্রয় নেন ওই নারী। তখন ওই সন্ত্রাসীদের দোকান থেকে বের হতে বলেন পারভেজ। ঘটনাটি ভিডিও করার সময় পারভেজকে কিল-ঘুষি ও রড দিয়ে পিটিয়ে জখম করেন তারা। এসময় দোকান থেকে নগদ টাকাও লুট করা হয়। হামলাকারীরা শরীয়তপুর পৌরসভার উত্তর পালং গ্রামের আবুল কাশেম মিয়ার ছেলে নাজমুল মাদবর ও নাঈম মাদবরের অনুসারী বলে অভিযোগ করেন রোকনুজ্জামান পারভেজ।

আবুল কাশেম মিয়া বলেন, ‘আমি এই ব্যাপারে কিছু জানিনা। যদি আমার ছেলেরা এ ধরনের ঘটনা ঘটিয়ে থাকে তবে তাদের বিচার করা হোক।’

সদর হাসপাতালের আবাসিক মেডিকেল অফিসার (আরএমও) ডা. সুমন কুমার পোদ্দার জানান, পারভেজের ঘাড়ে আঘাত করা হয়েছে। আরও কিছু সময় পার না হলে তার সঠিক অবস্থা বলা যাবে না।

পালং মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. আক্তার হোসেন বলেন, আহত অবস্থায় রোকনুজ্জামান পারভেজকে উদ্ধার করে সদর হাসপাতালে পাঠানো হয়। এ ঘটনায় মামলার প্রস্তুতি চলছে।

শরীয়তপুর প্রেসক্লাবের সভাপতি অনল কুমার দে হামলাকারীদের আইনের আওতায় আনার দাবি জানায়।

শরীয়তপুর নাগরিক অধিকার আন্দোলন কেন্দ্রীয় কমিটির সভাপতি এসএম আবুল কালাম আজাদ বলেন সাংবাদিক রকোনুজ্জামান পারভেজ এর উপর সন্ত্রাসী হামলার বিচার দাবি করছি এর সাথে যারা জড়িত তাদের সবাইকে আইনের আওতায় আনার জন্য অনুরোধ করছি,আর এ নিয়ে যদি কোনো তালবাহানা শুরু হয় তাহলে আমরা শরীয়তপুর সামাজিক সংগঠনগুলো মানববন্ধন এর প্রস্তুতি গ্রহণ করিব।।

শরীয়তপুর নাগরিক অধিকার আন্দোলনের কেন্দ্রীয় কমিটির সাধারণ সম্পাদক জুয়েল আহমেদ মোল্লা বলেন সাংবাদিক রোকনুজ্জামান পারভেজক এর উপর হামলার তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানাই দ্রুত এর সাথে জড়িতদের আইনের আওতায় আনার দাবি করছি অথবা শরীফপুর নাগরিক অধিকার আন্দোলনের পক্ষ থেকে মানববন্ধন ও বিভিন্ন কর্মসূচি গ্রহণ করিব।

Spread the love

পাঠক আপনার মতামত দিন