স্বাধীনতা অর্জন হয়নি, শুধুমাত্র হাতবদল হয়েছে!

 

অনুলিখন কবিতা চৌধুরী :

উখিয়ায় শহীদ পরিবারের এক উত্তরসূরীর ‘স্বাধীনতা অর্জন হয়নি, শুধুমাত্র হাতবদল হয়েছে’ দাবি সম্বলিত একটি স্ট্যাটাস সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে নতুন করে ভাইরাল হয়েছে।জন্ম দিয়েছে নতুন বিতর্কের। ভাইরাল হওয়া ফেসবুক আইডিটির নাম Faria Islam Morzina( ফারিয়া ইসলাম মর্জিনা)। স্ট্যাটাসের সূত্র ধরে অনুসন্ধানে জানা যায় মূলত: আইডিটি ব্যবহারী ব্যক্তিটি হচ্ছেন সাবেক মন্ত্রী পরিষদ সচিব মোহাম্মদ শফিউল আলম এবং হলদিয়াপালং ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান শাহ আলমের ভাতিজী ও উখিয়া উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান জাহাঙ্গীর আলমের ছোট বোন।

 

স্ট্যাটাসের সূত্রধরে আরো জানা যায় এ বছরের ২৬ মার্চ মহান স্বাধীনতা দিবসে এই নারীর ব্যবহৃত আইডি (Faria Islam Morzina) থেকে দেওয়া স্ট্যাটাসে তিনি লিখেছেন – ‘এইদিন সেই সময়! স্বাধীনতা অর্জন হয়নি! শুধুমাত্র হাতবদল হয়েছে। এই যেন পৃথিবীর নিকৃষ্টতম স্বাধীনতা দিবস উদযাপন। ধিক্কার….’

 

একইভাবে ওই নারী যুদ্ধাপরাধের দায়ে সাজাপ্রাপ্ত আল্লামা দেলাওয়ার হোসেন সাঈদীর বক্তৃতার একটি অংশ ছবিসহ পোস্ট করে লিখেছেন – ‘আহারে… মানুষটি কত আগে সতর্ক করেছিলেন।’ শুধু তাই নয় বর্তমান সরকার ও আওয়ামী লীগের নানা কর্মকাণ্ডের নেতিবাচক সমালোচনাও নিয়মিত করে থাকেন এ নারী।

 

এসব স্ট্যাটাস নজরে আসা স্থানীয় অনেকেই জানিয়েছেন, যারা শহীদ পরিবারের মর্যাদাটাকে পুঁজি করে সরকারি ও বেসরকারি নানা রকম সুবিধা ভোগ করছে তাদের কাছে এমন আপত্তিকর কিছু তারা আশা করেননি।

 

 

তবে তার এইসব  লেখাকে  সমর্থন জানিয়ে সুমাইয়া মামুন নামক একটি আইডি থেকে কমেন্টে লিখেছেন, ধরে নেন আমার বাবা মুক্তিযোদ্ধা কিংবা আমরা মুক্তিযোদ্ধার বংশধর, তারমানে এই না যে মুক্তিযোদ্ধা পরিবার কিছু করলে তাকে পশ্রয় দিবো। তিনি তো আর সুপ্রিমকোর্টে বিচার চায়নি, জাস্ট সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে দিছে। সব পরিবারই দেখবে, কিছু বুঝতে পারবে। মানুষ মাত্রই ভুল। আপনি বুঝাতে চেয়েছেন যে, ওনি  মুক্তিযোদ্ধা পরিবারের সন্তান, তাহলে তার এমন পোস্ট কেন।

 

আমার কথা হচ্ছে যে, প্রত্যেক মানুষের নিজস্ব একটা মত থাকে সেটা আপনারই বলা উক্তি। আশা করি ওনি খারাপ কিছু পোস্ট করেননি।

 

 

 

একই বিষয়ে কড়া সমালোচনা করে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে মো: মনজুর এলাহী নামে আরেকজন লিখেছেন, জনাবা, স্বাধীনতা কখনো হাতবদল হতে পারেনা। ২৬ মার্চ মহান স্বাধীনতা দিবস উদযাপনের সময় যারা রাজপথে তান্ডব চালিয়েছে তারা হচ্ছে জাতির কুলাঙ্গার। আর আপনি যে সাঈদির বক্তব্য দেখালেন তিনি হচ্ছেন সু’সময়ের অন্ধ। বিএনপি ক্ষমতায় আসলে তিনি অন্ধ হয়ে যান। আওয়ামীলীগ ক্ষমতায় আসলে তিনি শুধু আকাশে কালো মেঘ দেখেন। যখন চট্টগ্রামে ১০ ট্রাক অস্ত্র ধরা পড়লো তখন তিনি ঘুমিয়ে ছিলেন। যখন দেশের ৬৪ টি জেলায় একযোগে বোমা হামলা হলো তখন তিনি বেগম জিয়ার শাড়ি দিয়ে তার চোখ বেঁধে রেখে ছিলেন। যখন দূর্নীতিতে পর পর চারবার চ্যাম্পিয়ন হলো দেশ তখন তিনি আকাশ ভ্রমনে ছিলেন। যখন উত্তরবঙ্গে জিএমবির উত্থান হলো তখন তিনি সবকিছুর জন্য মিডিয়ার দোষ দিয়েছিলেন। যখন সিরাজগঞ্জে পূর্ণিমা ধর্ষিত হলো তখন তিনি বেগম জিয়ার শাড়ির আচলে লুকিয়ে ছিলেন। আসলে ভন্ডরা সব এইরকম। আপনার প্রতি অনুরোধ থাকবে মহান স্বাধীনতা নিয়ে মনগড়া মন্তব্য থেকে বিরত থাকুন।

 

এসব বিষয়ে স্থানীয় এক মুরব্বি মন্তব্য করেন শহীদ পরিবারের লোকজন যা ইচ্ছা লিখতে পারে, যা ইচ্ছা করতে পারে, তাদের জন্য কোন আইন প্রযোজ্য আছে কী?তবে তিনি বিষয়টি ব্যাপারে ব্যবস্থা নেয়ার জন্য  সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের দৃষ্টি আকর্ষণ করেছেন।

শরীয়তপুরে ঈদ সামগ্রী উপহার বিতরণ করলেন “শরীয়তপুর নাগরিক অধিকার আন্দোলন,,

টিটুল মোল্লা।।   

শরীয়তপুর নাগরিক অধিকার আন্দোলনের উদ্যোগে “করোনা” ভাইরাস প্রতিরোধে শরীয়তপুর জেলায় বিভিন্ন অসহায় দুস্থ মানুষের মধ্যে মাক্স এবং ঈদ সামগ্রী উপহার বিতরণ করা হয়েছে।

 

শরীয়তপুর নাগরিক অধিকার আন্দোলেন এর কেন্দ্রীয় কমিটির সভাপতি এস এম আবুল কালাম আজাদ, সাধারন সম্পাদক জুয়েল আহমেদ মোল্লার উপস্থিতিতে শরীয়তপুর নাগরিক অধিকার আন্দোলন এর  সভাপতি, বাংলাদেশ মফস্বল সংবাদিক ফোরাম শরীয়তপুর জেলা শাখার সভাপতি,দৈনিক দেশ বার্তা শরীয়তপুর জেলা প্রতিনিধি এবং দেশ২৪ নিউজ ডট কম এর সম্পাদক মোঃ ফারুক আহম্মেদ মোল্লার নেতৃত্বে এ উপহার সামগ্রী বিতরন করা হয়।

শরীয়তপুর জেলার ছয়টি উপজেলার বিভিন্ন অসহায় দুস্থ মানুষ, রিকশা চালক, ভ্যান চালক, অসহায় খেটে খাওয়া মানুষদের মধ্যে ঘুরে ঘুরে মাক্স এবং ঈদ  সামগ্রী বিতরণ করা হয়েছে। 

 

শরীয়তপুর নাগরিক অধিকার আন্দোলনের কেন্দ্রীয় কমিটির সভাপতি  এস এম আবুল কালাম আজাদ বলেন, এই সংগঠনের মাধ্যমে আমরা বিভিন্ন সময়ে দেশের ক্রান্তিকালে সাধারণ খেটে খাওয়া মানুষের জন্য কাজ করে যাচ্ছি। শরীয়তপুরের বিভিন্ন উপজেলা ও পৌরসভা সহ বিভিন্ন এলাকায় আমাদের এই উপহার ঈদ সামগ্রী বিতরণ করা হচ্ছে। এই ধারাবাহিকতা অব্যাহত থাকবে।সমাজের বৃত্তবান যারা আছেন তারা সবাই যদি সামান্য কিছু কিছু করে দিয়ে দেশের এই সময় মানুষের জন্য এগিয়ে আসেন তাহলে হয়তো এসব অসহায় মানুষের একটু হলেও উপকারে আসবে। 

 

এ সময় শরীয়তপুর নাগরিক অধিকার আন্দোলন এর কেন্দ্রীয় কমিটির সাধারণ সম্পাদক জুয়েল আহমেদ মোল্লা বলেন, আমরা চেষ্টা করে যাচ্ছি দেশের এই পরিস্থিতিতে অসহায় মানুষের পাশে দাড়াতে। শরীয়তপুর নাগরিক অধিকার আন্দোলন এর ঈদ উপহার বিতরণ হচ্ছে এবং অভ্যাহত থাকবে ইনশাআল্লাহ।

 

এ ব্যাপারে, শরীয়তপুর নাগরিক অধিকার আন্দোলেন এর শরীয়তপুর জেলা শাখার সভাপতি এবং বাংলাদেশ মফস্বল সংবাদিক ফোরামের শরীয়তপুর জেলা শাখার সভাপতি মোঃফারুক আহম্মেদ মোল্লা বলেন, আমাদের সংগঠন একটি স্বেচ্ছাসেবী সংগঠন। এই সংগঠনের মাধ্যমে আমরা বিভিন্ন সময়ে দেশের সাধারন খেটে খাওয়া মানুষের জন্য কাজ করে যাচ্ছি। তারই ধারাবাহিকতায় দেশের সম্প্রতি করোনা ভাইরাস প্রতিরোধের সহায়তায় শরীয়তপুর জেলার সব গুলো উপজেলাতেই কম বেশি করে আমাদের এই ঈদ সামগ্রী উপহার বিতরণ করছি।

 

এ সময় উপস্থিত বাংলাদেশ মফস্বল সংবাদিক ফোরামের শরীয়তপুর জেলা শাখার সাধারণ বেলাল হোসাইন, আলোকিত শরীয়তপুর ডট কম এর সম্পাদক ও মোঃতানভীর আহমেদ,সাংবাদিক শাহীন আলম, সাংবাদিক টিটুল মোল্লা সহ  শরীয়তপুর নাগরীক অধিকার আন্দোলনের বিভিন্ন নেতাকর্মী।