ফরিদপুরে এক সপ্তাহের লকডাউন শুরু, শহরে ঢোকার মুখে পুলিশের তল্লাশি,থামছে না জনগন

টিটুল মোল্লা।।
ফরিদপুর জেলায় করোনার সংক্রমন অধিক আকার ধারণ করায় ২০ জুন রবিবার এক প্রজ্ঞাপনের মাধ্যমে ২১শে জুন সোমবার সকাল ৬ টা থেকে এক সপ্তাহের জন্য লকডাউনের ঘোষনা দেন জেলা প্রশাসক অতুল সরকার।

কাচাঁ বাজার ও ঔষধের দোকান ছাড়া সব কিছুই বন্ধ থাকবে লকডাউনে।
এই লকডাউনের নির্দেশনা যারা মানবেন না তাদের বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহন করার কথা জানিয়েছেন জেলা প্রশাসক এবং পুলিশ সুপার।

সকাল থেকেই শহরের বিভিন্ন মোড়ে মোড়ে চলছে পুলিশের তল্লাশি।কারন ছাড়া শহরে ঢুকতে বা বের হতে দেয়া হচ্ছে না। নিজস্ব অফিসিয়াল গাড়ী ছাড়া কোন গাড়ী শহরে আসতে ও বের হতে দেয়া হচ্ছে না।

চারিদিকে ঘুরে ঘুরে দেখা যায়,সাধারণ জনগণ প্রশাসনের এ বিধিনিষেধ মানছে না। শহরের বিভিন্ন রাস্তায় ও বাজারে মানুষের চলাফেরা রয়েছে। চলছে ব্যাটারী চালিত রিক্সা ও ইজি বাইক। অনেকে মাস্ক ব্যবহার করছেনা বা করলেও মানছে না নির্দিষ্ট দুরত্ব।
বিনা কারনেও বিভিন্ন ধরনের মানুষ বের হচ্ছেন রাস্তায়।প্রশাসনের কঠোর অবস্থান থাকা সত্বেও এই অবস্থা জনগনের।

ফরিদপুর জেলায় গত এক সপ্তাহে করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন ৬ শতাধিক। আর মৃত্যু বরন করেছেন ১৫ জন। করোনার সংক্রমনের হার ও মৃত্যুর সংখ্যা বেড়ে যাওয়ায় জেলা করোনা ভাইরাস সংক্রমন প্রতিরোধ কমিটিএ লকডাউনের সিদ্ধান্ত নেন।

ফরিদপুর পৌর এলাকা ছাড়াও ভাঙ্গা ও বোয়ালমারী পৌর এলাকায়ও এক সপ্তাহের জন্য লকডাউন ঘোষনা করা হয়।
জেলা প্রশাসক জানিয়েছেন, প্রথম দফায় এক সপ্তাহের জন্য লকডাউন দেওয়া হয়েছে। পরবর্তীতে পরিস্থিতি বিবেচনা করে সময় আরো বাড়ানো হতে পারে।

ঢাকা মহানগর প্রেসক্লাবের নতুন কমিটি ঘোষণা সভাপতি গোলাম সর‌ওয়ার পিন্টু সাধারণ সম্পাদক সৈয়দ শফিকুর রহমান পলাশ

প্রতিষ্ঠাতা ও সভাপতি- গোলাম সরওয়ার পিন্টু,
সিনিয়র সহ-সভাপতি- মাজহারুল আমিন শুভ, সহ-সভাপতি- বোরহান উদ্দিন ডালিম,
সহ-সভাপতি- এস এম জামান,
সহ-সভাপতি- ঢালী কামরুজ্জামান হারুন, সহ-সভাপতি- খোরশেদ আলম,
সহ-সভাপতি- আব্দুর রাজ্জাক রাজ,
সহ-সভাপতি- কাজী আবু তাহের মোঃ নাসির, সহ-সভাপতি- কামাল হোসেন খান,
সহ-সভাপতি- সরকার জামাল,
সাধারণ সম্পাদক- সৈয়দ শফিকুর রহমান পলাশ,
যুগ্ম সম্পাদক- ফরিদ উদ্দিন সিদ্দিকী,
যুগ্ম সম্পাদক- সফিকুল ইসলাম,
যুগ্ম সম্পাদক- জাহিদ আরমান,
যুগ্ম সম্পাদক- এস এম আবুল কালাম আজাদ,
যুগ্ম সম্পাদক- সৈয়দ শোয়েব বিপ্লব,
সাংগঠনিক সম্পাদক- মোঃ জাকির হোসেন,
সহ সাংগঠনিক সম্পাদক- সুমন সরদার,
সহ সাংগঠনিক সম্পাদক- এরশাদ হোসেন,
সহ সাংগঠনিক সম্পাদক- প্রান্ত পারভেজ,
সহ সাংগঠনিক সম্পাদক- জাকির পাটোয়ারী,
সহ সাংগঠনিক সম্পাদক- এনামুল হাসান,
সহ সাংগঠনিক সম্পাদক- সুজন শেখ,
আইন সম্পাদক- এডভোকেট খালেদ মাসুদ,
সহ আইন সম্পাদক- এডভোকেট ফোরকান মিয়া,
মহিলা বিষয়ক সম্পাদক- জোবায়দা নাজনীন চৌধুরী
সহ মহিলা বিষয়ক সম্পাদক- নাজমা সুলতানা,
দপ্তর সম্পাদক- এবি খালেক হোসেন,
সহ দপ্তর সম্পাদক- জাকারিয়া চৌধুরী,
প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক- বিমল সরকার,
সহ প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক- ডিএম রবিন,
অর্থ সম্পাদক- মফিজুল ইসলাম,
সহ অর্থ সম্পাদক- কথা আক্তার,
সাংস্কৃতিক সম্পাদক- মনিরুজ্জামান অপূর্ব,
সহ সাংস্কৃতিক সম্পাদক- মারুফ সরকার
ক্রিড়া সম্পাদক- রোবেল হোসেন,
সমাজ কল্যাণ সম্পাদক- বিপা চৌধুরী,
ত্রান ও পুনর্বাসন সম্পাদক- এইচ এ মিতু,
সহ ত্রান ও পুনর্বাসন সম্পাদক- মোল্লা তানিয়া,
মানবাধিকার বিষয়ক সম্পাদক- হৃদয় হাসান,
শিক্ষা ও পাঠাগার সম্পাদক- রুমেল ইসলাম শান্ত বাবু
ধর্ম বিষয়ক সম্পাদক- জসিম উদ্দিন চৌধুরী নিলয়,
শ্রমবিষয়ক সম্পাদক- রাহেলা সিদ্দিকা,
আন্তর্জাতিক সম্পাদক- জেএইচ টিপু,
স্বাস্থ্য বিষায়ক সম্পাদক- এম এ শবুর,
পাবলিক রিলেশন অফিসার- মোঃ সুজন মিয়া,
সদস্য- এমডি কামাল হোসেন,
সদস্য- ফাতেমা আক্তার স্বপ্না,

ফরিদপুরে ছেলের বউকে ধর্ষণের অভিযোগ উঠেছে শ্বশুরের বিরুদ্ধে

ফরিদপুর প্রতিনিধি: ফরিদপুরের বোয়ালমারীতে নিজের ছেলের বউকে ধর্ষণের অভিযোগ উঠেছে শ্বশুরের বিরুদ্ধে। উপজেলার পরমেশ্বরদী ইউনিয়নের একটি গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। ধর্ষণের অভিযোগে গৃহবধূর শশুর পাঁচু শেখকে (৪৬) আটক করে আদালতে প্রেরণ করেছে বোয়ালমারী থানা পুলিশ।

ধর্ষণের ঘটনায় ওই গৃহবধূ শনিবার (১৯ জুন) রাতে বাদি হয়ে থানায় ধর্ষণের মামলা দায়ের করেন। যার মামলা নং-১৩। মামলার পরপরই ধর্ষকের অভিযোগ উঠা ওই শ্বশুরকে আটক করা হয়। আজ রবিবার (২০ জুন) শ্বশুর পাচু শেখকে আদালতে প্রেরণ করা হয়েছে।

পুলিশ ও স্থানীয়রা জানায়, উপজেলার পরমেশ্বরদী গ্রামের বাসিন্দা পাচু শেখ (৪৬) গত ১২ জুন রাত ১০টার দিকে ওই গৃহবধূর বসত ঘরে প্রবেশ করে গৃহবধূকে ধর্ষণ করে। এ ঘটনায় ওই গৃহবধূ শনিবার রাতে বাদি হয়ে ২০০০ (২) সংশোধনী) আইন (৩) এর ৯ (১) ধারায় শশুরের নামে মামলা করেন। আসামি পাচু শেখকে পুলিশ আটক করে রবিবার আদালতে প্রেরণ করেছে।

মামলা তদন্ত কর্মকর্তা বোয়ালমারীর ডহরনগর পুলিশ তদন্ত কেন্দ্রের উপ-পরিদর্শক আ: রাজ্জাক বলেন, ওই গৃহবধূকে ধর্ষণের ঘটনায় মামলা হয়েছে। আসামিকে গ্রেফতার করে আদালতে প্রেরণ করা হয়েছে। গৃহবধূকে স্বাস্থ্য পরীক্ষার জন্য আজ রবিবার (২০ জুন) ফরিদপুর বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।

মসজিদে নববির পাশে ৫০ বছর কাটিয়ে শতবর্ষী সেই বৃদ্ধের মৃত্যু

ইসলাম ডেস্ক- সৌদি আরবের পবিত্র মসজিদে নববির পাশে অবস্থানকারী প্রবীণতম ব্যক্তিত্ব শায়খ মহিউদ্দিন হাফিজুল্লাহ ইন্তেকাল করেছেন (ইন্নালিল্লাহি ওয়া ইন্না ইলাইহি রাজিউন)। মৃত্যুকালে তার বয়স হয়েছিল ১০৭ বছর। গতকাল শনিবার মসজিদে নববিতে তার জানাজা অনুষ্ঠিত হয়।

জানা গেছে, দীর্ঘ ৫০ বছর যাবত তিনি মসজিদে নববিতে অবস্থান করেছেন এবং মৃত্যু অবধি নিয়মিত মসজিদে নববিতে যাতায়াত করতেন।

আন্তর্জাতিক সংবাদ মাধ্যম আল জাজিরা জানিয়েছে, শায়খ মহিউদ্দিন ছিলেন মদিনা নগরীর প্রবীণদের অন্যতম। ইসলামে দ্বিতীয় খলিফা উমর বিন খাত্তাব (রা.)-এর বংশধর। ইসলামের বিখ্যাত ইতিহাসবিদ ও আলেম মহিউদ্দিন ইবনে আরাবি (রহ.) ছিলেন তার পূর্বপুরুষ।

সৌদির পবিত্র মক্কা-মদিনার ইসলামী স্থাপনার ইতিহাস ও ঐতিহ্য বিশেষজ্ঞ মুহাম্মদ আবু মালিক জানান, ‘প্রয়াত ব্যক্তি অত্যন্ত হাস্যোজ্জ্বোল ও কোমল মনের অধিকারী ছিলেন। সর্বদা আল্লাহর জিকির করতেন। পবিত্র কোরআনে পাঠের সঙ্গে তার ছিল গভীর বন্ধুত্ব।’
এক টুইট বার্তায় তিনি জানান, ‘মরহুমের কোনো স্ত্রী ও সন্তান ছিল না। একজন দানশীল ব্যক্তির সহায়তায় তিনি মসজিদে নববির পাশে অবস্থান করতেন। গত ৩০ বছর যাবত আমি তাকে পিঠ বাঁকা করে মসজিদে যাতায়াত করতে দেখছি। মসজিদে নববিতে প্রতিদিন পাঁচ ওয়াক্ত নামাজে আদায় করতেন। মদিনার পবিত্র হারাম শরিফ থেকে তার বাসার দূরত্ব ছিল প্রায় তিন কিলোমিটার। প্রতিদিন ফজরের দুই ঘণ্টা আগে ঘর থেকে বেরিয়ে জিকির করতে করতে তিনি মসজিদে আসতেন।

মুহাম্মদ আবু মালিক আরও জানান, ‘তিনি সব সময় নিচের দিকে তাকিয়ে হাঁটতেন। এদিক সেদিক তাকাতেন না। মদিনা নগরীর কারবান ও তাজুরি এলাকা থেকে তিনি প্রায় হেঁটে আসতেন। বাবুস সালাম ফটক দিয়ে তিনি মসজিদে নববিতে প্রবেশ করতেন। ফজরের নামাজ পড়ে ইশরাক পর্যন্ত অপেক্ষা করতেন। এরপর ঘরে ফিরে আবার জোহরের আগে মসজিদে এসে রাতের বেলা এশার নামাজ আদায় করে ঘরে ফিরতেন। এভাবেই মৃত্যুর আগ পর্যন্ত তিনি মসজিদে আসা-যাওয়া করতেন।’
‘হারামের মধ্যে আমি তার সঙ্গে অনেক সাক্ষাত করেছি। মসজিদ নববি দীর্ঘ দিন বন্ধের পর খোলা হলে তার সঙ্গে সাক্ষাত করি। তখন আমাকে দেখে তিনি কেঁদে ফেলেন। তার দুচোখ বেয়ে আনন্দের অশ্রু গড়িয়ে পড়ে। তখন মসজিদে নববি ও রওজা শরিফে যাওয়ার জন্য তার গভীর ভালোবাসা ও আক্ষেপ দেখতে পাই’ জানান মুহাম্মদ আবু মালিক।

শিগগিরই আল-আকসা স্বাধীন হবে: হামাস

আন্তর্জাতিক ডেস্ক- ফিলিস্তিনি প্রতিরোধ আন্দোলন হামাস নেতা ইয়াহিয়া সিনওয়ার বলেছেন, ফিলিস্তিন সমস্ত সংগঠনের অংশগ্রহণে পবিত্র আল-আকসা শিগগিরই ইহুদিবাদী ইসরায়েলের দখলদারিত্ব থেকে মুক্ত হবে।

সম্প্রতি এক সম্মেলনে দেওয়া বক্তৃতায় ইয়াহিয়া সিনওয়ার বলেন, জেরুজালেমে আল-কুদসকে নিয়ে যে লড়াই চলতে তাতে ফিলিস্তিনের সমস্ত সংগঠন বিজয়ী হবে।-খবর পারস টুডের

তিনি বলেন, ফিলিস্তিনের জনগণ পবিত্র আল-আকসা মসজিদ স্বাধীন ও সেখানে নামায আদায় করার কাছাকাছি রয়েছে। আমি নিশ্চিত যে, আপনারা যারা বৃদ্ধবয়সে পৌঁছেছেন তারা মহান উত্থানের দিন কালাশনিকভ হাতে তুলে নিয়ে তরুণদের মত উজ্জীবিত বোধ করবেন।

এর আগে পূর্ব জেরুজালেমের আল-আকসা মসজিদ প্রাঙ্গণে শুক্রবার (১৮ জুন) জুমার নামাজের সময় হামলা চালিয়েছে ইসরায়েলি বাহিনী। এতে অন্তত তিন ফিলিস্তিনি আহত হয়েছেন।

আলজাজিরার খবরে বলা হয়, মঙ্গলবার উগ্রপন্থী ইসরায়েলিদের পতাকা মিছিলের সময় রাসুল (সা.)-কে নিয়ে কটূক্তির প্রতিবাদে শুক্রবার জুমার পরে বিক্ষোভ করেন ফিলিস্তিনিরা।

বিক্ষোভ দেখাতে ফিলিস্তিনিরা আল-আকসা প্রাঙ্গণে জড়ো হন। কিন্তু তখন বাব আল-সিলসিলা দিয়ে ইসরায়েলি বাহিনী তাদের ওপর ঝাঁপিয়ে পড়ে। মুসল্লিদের ওপর রাবারের প্রলেপ দেওয়া স্টিল বুলেট, টিয়ার গ্যাস, স্টান গ্রেনেড নিক্ষেপ করে তারা।

হামলা চালিয়ে মসজিদ প্রাঙ্গণ থেকে কয়েক হাজার মুসল্লিকে ছত্রভঙ্গ করে দেওয়া হয়েছে।