সখিপুর চরসেনসাস ইউনিয়ন পরিদর্শন ও বৃক্ষ রোপন করেন শরীয়তপুর জেলা প্রশাসক পারভেজ হাসান

আমান আহমেদ সজীব: শরীয়তপুর প্রতিনিধি :

শরীয়তপুর: মা ইলিশ রক্ষা পেলে, সারা বছর ইলিশ মেলে, এই স্লোগান কে সামনে রেখে শরীয়তপুরের ভেদরগঞ্জ উপজেলার সখিপুর থানাধীন চরসেনসাস ইউনিয়নে ১৯ শত জেলের মাঝে মৎস্য ভিজিএফ চাউল বিতরণ অনুষ্ঠানের উদ্বোধন ও বৃক্ষ রোপন করেন জেলা প্রশাসক মোঃ পারভেজ হাসান শরীয়তপুর,

উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা তানভীর আল- নাসীফ’ এর
সভাপতিত্বে এর আগে সখিপুর থানা ও বালার বাজার ভুমি অফিস পরিদর্শন ও বৃক্ষ রোপন করেন। (১৪ অক্টোবর) বিকাল ৫ টায়,চরসেনসাস ইউনিয়নের ০৯ টি ওয়ার্ডের জেলের মাঝে ২০ কেজি করে মৎস্য ভিজিএফ চাউল বিতরণর করা হয়।

এসময় ট্যাক অফিসার হিসেবে উপস্থিত ছিলেন মোঃ গিয়াস উদ্দিন সহকারী প্রকৌশলী ও দুযোগ ব্যবস্থাপনা বিভাগ ভেদরগঞ্জ শরীয়তপুর, ইউনিয়ন পরিষদের সচিব আবুল কাশেম ,এ ছাড়াও উপস্থিত ছিলেন, সাবেক চেয়ারম্যান রফিকুল ইসলাম বালা, সাহাদাত হোসেন সরদার, হাসিবা বালা,ইউনিয়ন যুবলীগ সভাপতি ফিরোজ মাদবর, তানভীর আহমেদ, জিল্লু মুন্সী, ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মোঃ জিতু মিয়া বেপারী, ইউপি সদস্য বৃন্দ সহ অন্যান্যরা।

এ সময় চেয়ারম্যান জিতু মিয়া বেপারী তার বক্তব্যে বলেন, ৪ অক্টোবর থেকে ২৫ অক্টোবর পর্যন্ত নদীতে মা ইলিশ ধরার নিষেধাজ্ঞা আরোপ করা হয়েছে, তাই এ সময় কোন প্রকার মা ইলিশ ধরা, মজুদ করা, এবং বিক্রি করা যাবে না, এ জন্য এ ২২ দিনের খাদ্য সামগ্রী আপনাদের দেয়া হচ্ছে বলে জানান তিনি।

জুমার নামাজের পর বায়তুল মোকাররমে স্লোগান

নিউজ২৪লাইট ডেস্ক: জুমার নামাজের পরপরই জাতীয় মসজিদ বায়তুল মোকাররমের সামনে স্লোগান দিতে দেখা গেছে একদল মুসল্লিকে।

নামাজের সালাম ফেরানোর সঙ্গে সঙ্গে দৌড়ে গেটের সামনে চলে আসে এসব মুসল্লি। তাদের অনেককে ‘ইসলামের শত্রুরা হুঁশিয়ার, সাবধান’, ‘নারায়ে তাকবির, আল্লাহু আকবর’ স্লোগান দিতে দেখা যায়।

মুসল্লিদের কয়েকজনের হাতে ব্যানার দেখা যায়, তবে দ্রুত সামনের নিয়ে এগিয়ে যাওয়ায় সে ব্যানারে কী লেখা ছিল, তা দেখা যায়নি।

জাতীয় মসজিদের গেট থেকে বেরিয়ে মুসল্লিদের অনেককে নাইটিঙ্গেল মোড়ের দিকে যেতে দেখা যায়। সেখানে তাদের ছত্রভঙ্গ করতে কাঁদানে গ্যাসের শেল নিক্ষেপ করে পুলিশ। এতে ছত্রভঙ্গ হয়ে আশপাশের গলিতে ঢুকে যায় তারা।
জুমার নামাজের আগে একটি গেট বন্ধ করে দেয়াকে কেন্দ্র করে বায়তুল মোকাররমে উত্তেজনা দেখা যায়।

জুমার নামাজের আগে একটি গেট বন্ধ করে দেয়াকে কেন্দ্র করে বায়তুল মোকাররমে উত্তেজনা দেখা যায়।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, শুক্রবার দুপুর ১টা ২৫ মিনিটে মসজিদের উত্তর পাশের একটি কেচি গেট বন্ধ করে দেয়ার নির্দেশ দেয় পুলিশ। ওই সময় একজন নিরাপত্তারক্ষী গেটটি বন্ধ করে দিলে নামাজ পড়তে আসা একদল মুসল্লি উত্তেজিত হয়ে পড়েন।

ওই নিরাপত্তারক্ষীকে ধাওয়াও দেয় উত্তেজিত লোকজন। ইসলামী ফাউন্ডেশনের গেটের দিকে ছুটলে নিরাপত্তারক্ষীকে রক্ষা করেন দায়িত্বরত পুলিশ সদস্যরা।

এরপর থেকেই উত্তর পাশের সিড়িতে থাকা একদল মুসল্লি নানা ধরনের স্লোগান দিতে থাকেন। নামাজ শেষ হওয়ামাত্রই কিছু মুসল্লিকে দৌড়ে নাইটিঙ্গেল মোড়ের দিকে যেতে দেখা যায়।

দূর্গাপূজার বিসজর্নকে কেন্দ্র করে জুমার নামাজের পর যাতে কোনো অপ্রীতিকর পরিস্থিতি তৈরি না হয়, সে জন্য সকাল থেকে বায়তুল মোকাররম মসজিদ এলাকায় সতর্ক অবস্থান নেয় পুলিশ। তাদের সঙ্গে কড়া প্রহরায় দেখা যায় র‌্যাব ও বিজিবি সদস্যদের।

পুলিশের পক্ষ থেকে বলা হয়, শুক্রবার জুমার নামাজকে কেন্দ্র করে স্বাভাবিকভাবেই পল্টন এলাকায় নিরাপত্তা ব্যবস্থা থাকে। সম্প্রতি কুমিল্লায় পূজামণ্ডপে পবিত্র কোরআন রাখার অভিযোগে বিভিন্ন স্থানে হিন্দু সম্প্রদায়ের ওপর হামলার ঘটনায় অন্য সময়ের চেয়ে বাড়তি নিরাপত্তার ব্যবস্থা করা হয়।

এ বিষয়ে খিলগাঁও জোনের সহকারী কমিশনার (পেট্রোল) খন্দকার রেজাউল হাসান জুমার নামাজের আগে দেশের অন্যতম একটি অনলাইনকে বলেছিলেন, ‌ ‘অন্যান্য সময়েও শুক্রবার এ এলাকায় নিরাপত্তা বেশি নেয়া হয়। তবে আজকে আমরা আরও বেশি সর্তক রয়েছি।

‌‘যেহেতু কুমিল্লাতে একটি অপ্রীতিকর ঘটনা ঘটেছে এবং এ নিয়ে বিভিন্ন জায়গায় উত্তেজনাও দেখা গেছে, তাই বাড়তি সতর্কতা হিসেবে আমরা বায়তুল মোকররমসহ এই এলাকায় নিরাপত্তা জোরদার করেছি।

সুএ: সময়ের কন্ঠসর

সখিপুর উত্তর তারাবুনিয়ায়১৯০৬ জন জেলেদের মাঝে মৎস্য ভিজিএফ চাউল বিতরণ

সখিপুর উত্তর তারাবুনিয়ায়১৯০৬ জন জেলেদের মাঝে মৎস্য ভিজিএফ চাউল বিতরণ

আমান আহমেদ সজীব //শরীয়তপুর প্রতিনিধি:

শরীয়তপুর: মা ইলিশ রক্ষা পেলে, সারা বছর ইলিশ মেলে, এই স্লোগান কে সামনে রেখে শরীয়তপুরের ভেদরগঞ্জ উপজেলার সখিপুর থানাধীন উত্তর তারাবুনিয়া ইউনিয়নে ১৯০৬ জন জেলের মাঝে মৎস্য ভিজিএফ চাউল বিতরণ অনুষ্ঠানের উদ্বোধন করা হয়েছে।

বুধবার দুপুট ১টায়, উত্তর তারাবুনিয়ায় ইউনিয়নের ০৯ টি ওয়ার্ডের জেলের মাঝে ২০ কেজি করে মৎস্য ভিজিএফ চাউল বিতরণ করা হয়।

এসময় ট্যাক অফিসার হিসেবে উপস্থিত ছিলেন মোঃ আনিসুজ্জামান পল্লী সঞ্চয় ব্যাংক ভেদরগঞ্জ শরীয়তপুর, উত্তর তারাবুনিয়ায় ইউনিয়ন পরিষদের সচিব মেহেদী হাসান সিপন বেপারী ,এ ছাড়াও উপস্থিত ছিলেন, আব্দুল হামিদ সরদার,মনির হোসেন,ো ও উত্তর তারাবুনিয়ায় ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মোঃ ইউনুছ সরকার, ইউপি সদস্য বৃন্দ সহ অন্যান্যরা।

এ সময় চেয়ারম্যান ইউনুছ সরকার তার বক্তব্যে বলেন, ৪ অক্টোবর থেকে ২৫ অক্টোবর পর্যন্ত নদীতে মা ইলিশ ধরার নিষেধাজ্ঞা আরোপ করা হয়েছে, তাই এ সময় কোন প্রকার মা ইলিশ ধরা, মজুদ করা, এবং বিক্রি করা যাবে না, এ জন্য এ ২২ দিনের খাদ্য সামগ্রী আপনাদের দেয়া হচ্ছে বলে জানান তিনি।