সাভারের আশুলিয়ায় কুকুরের মাংস দিয়ে বিরিয়ানী” দোকানদার আটক

রাজিব

নিউজ২৪লাইন:

সাভারের আশুলিয়ায় কুকুরের মাংস দিয়ে বিরিয়ানি বিক্রির অভিযোগের ভিত্তিতে সংবাদ সংগ্রহ করতে গেলে সাংবাদিকদের ওপরে আল্লাহর দান বিরিয়ানি হাউজের মালিক রাজীব ও তার চাচাতো ভাই বিল্লাল চড়াও হন। এঘটনায় রাজীব (২২) নামে ঐ ব্যবসায়ীকে আটক করেছে পুলিশ। বিল্লাল (২৫) নামের আরও একজন পলাতক রয়েছেন। রবিবার (১৫ মে) রাত ১২ টার দিকে আশুলিয়ার নারসিংহপুর বাস স্ট্যান্ড সংলগ্ন আল্লাহর দান – ৫ নামের দোকান থেকে তাকে আটক করা হয়।

আটক রাজীব বরিশাল জেলার মুলাদি থানার নুনচর গ্রামের চুন্ন হাওলাদারের ছেলে। আশুলিয়ার বিভিন্ন বাজারে তাদের আল্লাহর দান নামে ৭ টি বিরিয়ানির দোকান রয়েছে। এছাড়া পলাতক বিল্লাল হোসেন একই এলাকার আবুল কালাম হাওলাদারের ছেলে। তারা সম্পর্কে চাচাতো ভাই।

জাতীয় উলামা মাশায়েখ আইম্মা পরিষদের সাংবাদিক সম্মেলন

নিউজ২৪লাইন:

নিজস্ব প্রতিবেদক:

জাতীয় উলামা মাশায়েখ আইম্মা পরিষদের উদ্যোগে আয়োজিত আজকের সাংবাদিক সম্মেলন থেকে সর্বধারার ওলামায়ে কেরাম ও নাগরিক সমাজের পক্ষ থেকে ঘোষিত দাবী ও কর্মসূচি-

১) যারা কথিত শ্বেতপত্র প্রকাশের মাধ্যমে দেশের সম্মানিত আলেমদের সম্মানহানি করেছে, আলেমদের বিরুদ্ধে মিথ্যা অপবাদ দিয়েছে, দেশবাসীর সামনে হেয় প্রতিপন্ন করার চেষ্টা করেছে; তাদের বিরুদ্ধে যথাযথ আইনি ব্যবস্থা গ্রহণ করতে হবে।

২) যারা বাংলাদেশকে সাম্প্রদায়িক সংঘাতের দেশ হিসেবে আন্তর্জাতিক পরিমণ্ডলে উপস্থাপন করে দেশের ভাবমূর্তি বিনষ্ট করতে চায়, তাদের কার্যক্রমকে তদন্তের আওতায় আনতে হবে এবং তাদের গতিবিধিকে গোয়েন্দা নজরদারীর আওতায় আনতে হবে।

৩) যারা মাঠ প্রশাসনের এবং পুলিশ প্রশাসনের কর্মকর্তাদের বিরুদ্ধে তদন্তের নামে উদ্দেশ্যমূলক অবৈধ তৎপরতা চালিয়েছে, তাদেরকে শাস্তির আওতায় আনতে হবে।

৪) দেশের সম্মানিত আলেমদের বিরুদ্ধে হয়রানীমূলক সকল মিথ্যা মামলা প্রত্যাহার করতে হবে।

৫) কারাবন্দী সকল মজলুম আলেমদের অবিলম্বে মুক্তি দিতে হবে।

৬) ওয়াজ মাহফিল নিছক একটি ধর্মীয় অনুষ্ঠান। তাই সারা দেশে ওয়াজ মাহফিল সকল প্রশাসনিক বিধি নিষেধের আওতামুক্ত রাখতে হবে।

৭) সারা দেশের আলেম ওলামা ও মাদরাসার বিরুদ্ধে সকল প্রকার হয়রানী বন্ধ করতে হবে।

৮) আল্লাহ, রাসূল (স.), ধর্মীয়-রাজনৈতিক ও সামাজিক সম্মানীয় ব্যক্তিবর্গের বিরুদ্ধে মানহানিকর শব্দের ব্যবহার নিষিদ্ধে আইন করতে হবে এবং তার যথাযথ ব্যবহার নিশ্চিত করতে হবে।

আমরা ঘাদানিকের প্রতিবেদনের পূর্ণরূপ হাতে পেয়ে বিস্তারিত পর্যালোচনা করে এর বিরুদ্ধে সামাজিক, আইনগত ও সাংস্কৃতিকভাবে মোকাবেলা করার সিদ্ধান্ত গ্রহণ করেছি। তারই ধারাবাহিকতায় :

কর্মসূচি-
১) নাগরিক মতবিনিময়- ২৮ মে শনিবার
২) ওলামা সম্মেলন- ২ জুন বৃহঃস্পতিবার

ওলামা সম্মেলন থেকে পরবর্তী কর্মসূচী ঘোষণা করা হবে, ইনশাআল্লাহ।