ডামুড্যায় দুই নারীকে মারধর-বাড়িঘর ভাঙচুরের অভিযোগ স্থানীয় প্রভাবশালীদের বিরুদ্ধে

বিশেষ প্রতিনিধি

শরীয়তপুরের ডামুড্যায় জমি নিয়ে বিরোধের জেরে দুই নারীকে মারধর ও বাড়িঘর ভাঙচুরের ঘটনা ঘটেছে।
গত সোমবার (২৪ জুন)দুপুর ৩ ঘটিকায় ডামুড্যা উপজেলার চর ধানকাঠি গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। এ ঘটনায় ২৭ জুন অভিযুক্ত করে আদালতে মামলা করেন চর ধানকাঠি গ্রামের সুমাইয়া আক্তার (২২)।
অভিযুক্তরা হলেন,১। সালাম ঢালী (৫৪)২।লিপি বেগম (২৫), ৩। আলেয়া বেগম(৩৫), ৪। ফাতেমা বেগম (২৪) ৫। আকাশ চৌকিদার(১৯)৬। তাজুল ইসলাম সরদার (৫৩)৭। সুজন সরদার(২০)সর্ব সাং ডামুড্যা থানার চর মালগাও হাওলাদার কান্দি।
অভিযোগ সূত্রে জানা যায়,গত সোমবার(২৪ জুন)দুপুর ৩ ঘটিকায় জমি নিয়ে বিরোধের জেরে ভূমি দস্যু অভিযুক্তরা লাঠিসোঠা ও দেশীয় অস্ত্র হাতে নিয়ে সুমাইয়া আক্তার এর স্বামীর বসত বাড়িতে প্রবেশ করে তাকে অশ্লীল ভাষায় গাল মন্দ করতে থাকে৷ এ সময় সুমাইয়া আক্তার বাড়ি থেকে বের হয়ে গাল মন্দের প্রতিবাদ করলে ১নং আসামির হুকুমে অভিযুক্তরা সবাই তাঁকে এলোপাথাড়ি ভাবে লাথি ঘুষি দিয়ে মারধর করে শরীরের বিভিন্নস্থানে রক্তাক্ত যন্ত্রনা দায়ক জখম করে।

পরে সুমাইয়া আক্তার চিৎকার করলে তার শ্বাশুড়ি মাজেদা বেগম এগিয়ে এসে অভিযুক্তদের হাত থেকে রক্ষা করতে গেলে তখন অভিযুক্তরা তাঁকেও মারধর করে ছেনতা দিয়ে মাথায় আঘাত করলে তিনি মারাত্নক ভাবে রক্তাক্ত হয়ে জখম হোন।পরবর্তীতে এই সুযোগে অভিযুক্তরা তাদের গলায় রক্ষিত ২ ভরি চেইন ছিনিয়ে নিয়ে বাড়ির দরজা ভেংগে আলমারি থেকে দুই লক্ষ পঞ্চাশ হাজার টাকা ও সোকেস থেকে দুইটি মোবাইল ফোন যার মূল্য ষাইট হাজার টাকা নিয়ে বাড়ি ঘর লুটপাট করে ভাংচুর করে।
পরে কান্নাকাটির ডাক চিৎকারে অভিযোগের সাক্ষীরা সহ আশপাশের লোকজন এসে অভিযুক্তদের হাত থেকে তাঁদের রক্ষা করে। এ সময় অভিযুক্তরা খুন জখমের ভয়ভীতি প্রদর্শন করে ঘটনাস্থল ত্যাগ করে ।পরে এলাকাবাসী সুমাইয়া আক্তার ও তার শ্বাশুড়ি মাজেদা বেগম কে উদ্ধার করে ডামুড্যা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে আসলে সেখানকার কর্তব্যরত চিকিৎসক দু’জনকে ভর্তি রাখে।
ডামুড্যা থানার এস আই শরিফুজ্জামান বলেন, আমি ঘটনাস্থলে গিয়েছি সব কিছু সরেজমিনে দেখেছি।

মুন্সীঞ্জে শিলইয়ে টিনের মসজিদ জমি ওয়াকফ দিলেন মেম্বার

নিউজ২৪লাইন:

মুন্সীগঞ্জ প্রতিনিধি – মুন্সীগঞ্জ সদর উপজেলার শিলই ইউনিয়ন গ্রামের কৃতি সন্তান ৪নং ওয়ার্ড দুই বার নির্বাচিত মেম্বার নিজের ১০ শতাংশ সম্পত্তি ওয়াকফ উপরে টিনের পূর্ব কান্দি নূরানী জামে মসজিদ নামে সম্পন্ন স্থাপনা করেন মোহাম্মদ ওসমান সরদার।

বৃহস্পতিবার ২৭ই জুন বিকেল পাচঁটায় মসজিদের ইমাম মুজাহিদুল ইসলাম নামাজের শেষে ওসমান সরদার তিনি বলেন, ২০১৮ সালে আমার সম্পত্তি ১০ শতাংশ জমি আমি ওয়াকফা অবহেলিত মুসল্লীরদের নামাজের জায়গায় করে টিনের পূর্ব কান্দি নূরানী জামে মসজিদ নামে চারোপাশে ইটের দেয়াল এড়িয়া টেনে স্থাপনা নেম প্লেট দেওয়া হবে।

৪নং ওয়ার্ড মেম্বার নাম প্রকাশে উল্লেখ্য করে বলেন, টিনের মসজিদের জন্য যারা আর্থিক অনুদান সহযোগিতা করেছেন আওলাদ মিঝি, এবং ভবিষ্যতে ভবন নির্মাণের আশা দিয়েছে বাদশা বেপারী ও জাকির হোসেন জমাদার, সৈয়দ বেপারী, এবং মাসুদ সরকার অনেকেই এটাকে সাহায্য করার জন্য আমাকে উৎসাও করেছেন। অন্যান্য ওয়ার্ডের মেম্বার উপস্থিতি সংশ্লিষ্ট সমাজ গঠন করেছে আমার মসজিদ কে কেন্দ্র করে তাদের প্রতি আমার আহবান জানাই এই মসজিদ টি অবহেলিত পরে আছে আপনাদের সাহায্য সহযোগিতা কামনা করি আপনাদের সাহায্য পেলেই এটা একটি ভবনের নির্মাণ করা সক্ষম হবে।

এবিষয়ে শিলই ইউনিয়নের চেয়ারম্যান পারভেজ মৃধা বলেন, টিনের মসজিদের চারপাশে ইটের দেয়াল করে দেওয়া হয়েছে এটি একটি আল্লাহ্ ঘর সার্বিক সহযোগিতায় এটি উন্নতি কামনা হবে এর পাশে আমি মুসল্লিদের চলাচলের জন্য সড়ক ব্যবস্থা করে দিয়েছি।

ইসোয়াতিনিতে আওয়ামী লীগের প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উদযাপিত

ইয়ামিন কাদের নিলয়

বিশেষ প্রতিনিধি

আফ্রিকা মহাদেশের ইসোয়াতিনিতে আওয়ামী লীগের ৭৫তম প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী উদযাপিত হয়েছে।
২৩ জুন (রবিবার) মানজিনি পার্ক হোটেলের কনফারেন্স রুমে ইসোয়াতিনি আওয়ামী লীগের উদ্যোগে আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়।
ইসোয়াতিনি আওয়ামী লীগের সভাপতি খাইরুল শাহাজালালের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে ভার্চুয়াল ভাবে প্রধান অতিথি ছিলেন সর্ব আফ্রিকা আওয়ামী লীগের আহ্বায়ক ডা. লুৎফর রহমান রুপন।
বিশেষ অতিথি হিসেবে ভার্চুয়ালি উপস্থিত ছিলেন সর্ব আফ্রিকা আওয়ামী লীগের যুগ্ম আহবায়ক আব্দুল আউয়াল তানসেন, আহ্বায়ক কমিটির সদস্য মাহফুজ হায়দার সোহেল।
অনুষ্ঠানে বক্তব্য রাখেন ইসোয়াতিনি আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক মাহমুদুর রহমান শিষান, সাংগঠনিক সম্পাদক আবু রায়হান হাফিজুর, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক এস. এম মাসুদ রানা, সহ-সভাপতি চিরঞ্জিত বড়ুয়া, আব্দুল কাইয়ুম, জাহাঙ্গীর আলম প্রমুখ।
অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন উপদেষ্টা পরিষদের সদস্য আবুল হাসেম সহ ইসোয়াতিনি আওয়ামী লীগের নেতৃবৃন্দ।

রেঞ্জ কর্মকর্তা ফারুক বাবুলের যোগসাজশে খুরুশকুল-পিএমখালিতে ৫০ পয়েন্টে অবাধে পাহাড় নিধন ও বালি বিক্রি চলছে

রেঞ্জ কর্মকর্তা ফারুক বাবুলের যোগসাজশে খুরুশকুল-পিএমখালিতে ৫০ পয়েন্টে অবাধে পাহাড় নিধন ও বালি বিক্রি চলছে

কক্সবাজার উত্তর বনবিভাগের পিএমখালী রেঞ্জের খুরুশখুল বিটের বিশাল বনভূমি বিরানভূমিতে পরিণত হয়েছে। রেঞ্জার ফারুক বাবুলের বিরামহীন অনিয়ম—দুর্নীতি ও গাফেলতির কারণে প্রায় অরক্ষিত হয়ে পড়েছে পিএমখালি রেঞ্জ। এসব অভিযোগ স্থানীয় ভুক্তভোগীদের। অভিযোগ উঠেছে, উক্ত রেঞ্জ কর্মকর্তা খুরুশকুল বনবিভাগের আওতাভুক্ত পাহাড়কাটা, গাছপালা কাটা, খালের বালি বিক্রিসহ হেন কোন অপকর্ম নেই তিনি করছেননা। এসব অনৈক কাজ করতে তিনি ৫০টির অধিক পয়েন্ট তৈরি করেছেন। যেখান থেকে প্রতিনিয়ত গাছ কাটা, পাহাড় কাটা ও বালি বিক্রি চলছে অবাধে।
ভুক্তভোগীরা জানিয়েছেন, রেঞ্চ অফিসার ফারুক বাবুল তার অপকর্ম নির্বিঘ্নে চালাতে তাকে সহযোগিতা করেন বন কর্মকর্তা পরিচয়ধারী বন প্রহরী তরিকুল ইসলামসহ খুরুশকুল ও পিএমখালির স্থানীয় কিছু দালাল চক্র!
খুরুশখুল তেতৈয়া এলাকায় যে পাহাড়গুলো কাটা হচ্ছে— তেতৈয়ার বেলাল সিকদারের বাড়ির পিছনের পাহাড়। ইউসুফ ফকির পাড়া বাবুলের বাড়ির পাশের পাহাড় প্রায় কাটা শেষের দিকে। হাতকাটা জালিয়া বাপের পাড়া ও নূরানী মাদরাসা এর পাশের আহসান উল্লাহর বাড়ির পাশের পাহাড় এই পাহাড়গুলো কেটে সাবাড়!
কুমারিয়ার ছড়া এলাকায় যে পাহাড়গুলো কাটা হচ্ছে— কুমুরিয়ার ছড়া মসজিদের পূর্ব পাশের পাহাড় রেঞ্জ অফিসার বাবুলের ছত্রছায়ায় কাটতেছে এই পাহাড়।
কুমারিয়ার ছড়া, মালেকের গুনা পাহাড়, কেটে শেষ।
ঘোনার পাড়া মাদ্রাসার পাশে দুইটি পাহাড় কেটে শেষ ৷ আর্দশ গ্রাম, কদমতলী যাওয়ার মুখে পাহাড় কেটে সাবাড়! বওনা কাটা, কয়েকটি পাহাড় কেটে শেষ। দিঘির ঘোনা বিটেও অনেক পাহাড় কেটে শেষ!
রেঞ্জ কর্মকর্তা ফারুক বাবুল তার তৈরি করা সিন্ডিকেটের মাধ্যমে পাহাড় ও বনভূমি ধ্বংস করে শুধু রাতে নয় দিনের আলোতে বিক্রি করে দিচ্ছে পাহাড় খেকোদের কাছে। এই কাজে তিনি তার ডান হাত খ্যাত খুরুশকুল অফিসের বন প্রহরী তরিকুল ইসলামকে নিরাপদ মাধ্যম হিসেবে ব্যবহার করে আসছেন।
অনুসন্ধানে আরো জানা গেছে, পিএমখালি রেঞ্জ কর্মকর্তা ফারুক বাবুলের এই অনিয়ম ও অবৈধ পাহাড় কাটা, গাছ বিক্রি ও বালি বিক্রির বিষয়টি স্থানীয় সচেতন মহলের বিভাগীয় বন কর্মকর্তা ও বিভাগীয় সহকারী বন কর্মকর্তা বরাবর অভিযোগ করলে বিভাগীয় বন কর্মকর্তা খুরুশখুলে স্পেশাল টিম প্রেরণ করেন। তবে গ্রাম্য প্রবাদের মত “ঘরের মধ্যে চুর থাকলে চুর ধরবে কেমনে”! স্পেশাল টিম অভিযানে বের হলে রেঞ্জ কর্মকর্তা ফারুক বাবুলের নির্দেশে তারই ডানহাত বন প্রহরী তরিকুল ইসলাম পাহাড় খেকোদের ফোন দিয়ে আগেই সতর্ক করে দেন! যার ফলে বিভাগীয় স্পেশাল টিম কোন ধরনের প্রতিকার করতে পারেন নি।

এই বিষয়ে রেঞ্জ কর্মকর্তা ফারুক বাবুলের সাথে মুঠোফোনে একাধিকবার যোগাযোগ করার চেষ্টা করলেও তিনি ফোন রিসিভ করেন নি!

এমতাবস্থায়, স্থানীয়রা এই রেঞ্জ কর্মকর্তার বিরুদ্ধে ফুঁসে উঠেছে! স্থানীয়দের দাবি অনতিবিলম্বে এই পাহাড় খেকো, বন খেকো রেঞ্জ কর্মকর্তা ফারুক বাবুলকে শাস্তিমূলক বদলি করতে হবে। অন্যথায় তারা মানববন্ধন, জেলাপ্রশাসক বরাবর স্মারকলিপিসহ বিভিন্ন কর্মসূচি ঘোষণা করবেন বলে জানিয়েছেন!

সাংবাদিকের মামলা নিচ্ছে না পুলিশ! প্রেসক্লাবে মানববন্ধন

নিউজ২৪লাইন:
মুন্সীগঞ্জ প্রতিনিধি:
মুন্সীগঞ্জ শ্রীনগর উপজেলার সাংবাদিকের ওপর হামলার ঘটনায় মামলা গ্রহণ করছে না পুলিশ। হামলার শিকার সাংবাদিক আমিনুল ইসলামের অভিযোগ, লিখিত অভিযোগ করলেও তা মামলা হিসেবে গ্রহণ করা হচ্ছে না। ফলে আসামি এখনও গ্রেফতার হয়নি। এবিষয়ে শ্রীনগর উপজেলার সাংবদিকরা প্রেসক্লাবের সামনে মানববন্ধন করেণ।
সাংবাদিকের অভিযোগ, হামলাকারীরা প্রকাশ্যে ঘুরে বেড়াচ্ছে। কয়েকবার অভিযোগ নিয়ে গেলেও ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তার (ওসি) তা আমলে নেননি। সাংবাদিক আমিনুল বলেন, আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক জাকির হোসেন বাবু’র হাতে মার খেয়েছি এবং আহত হয়েছি, এটা সাংবাদিকের জন্য লজ্জার।’
মামলা চারদিন ধরে না নেওয়ার অভিযোগের বিষয়ে ওসি আব্দুল্লাহ আল-তায়েবীর, দৈনিক সংবাদ সারাবেলা কে বলেন, অভিযোগে কিছু ভুল আছে। আপনি সন্ধ্যায় আসেন,অভিযোগ নেয়া হবে। আর মামলা না হওয়ায় কাউকে আটক বা গ্রেফতারও করা হয়নি।’
তবে ভুক্তভোগী সাংবাদিকের অভিযোগ, এ ঘটনায় ইউনিয়নের আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক জাকির হোসেনকে প্রধান আসামি করে একাদিক জনের বিরুদ্ধে একটি লিখিত অভিযোগ করা হলেও রহস্যজনকভাবে অভিযোগটি মামলা হিসেবে গ্রহণ করা হচ্ছে না। গত ১৮ জুন মঙ্গলবার মুন্সীগঞ্জ শ্রীনগর উপজেলার সিংপাড়া এলাকায় বাজার করতে গেলে, ইউনিয়নের আঃ লীগের সাধারণ সম্পাদকের নেতৃত্বে একদল দুর্বৃত্ত সাংবাদিককে পিটিয়ে ও ইট-পাটকেল মেরে আহত করে।

২২ জুন শনিবার সকাল ১১টায় প্রেসক্লাবের সামনে উপজেলার সাংবাদিকরা মানববন্ধনে অংশগ্রহণ করে। সাংবাদিকরা বলেন, এই ভাবে সাংবাদিকরা আহত হলেও থানা পুলিশ কোন কাজে আসেনা। আমরা এর প্রতিকার চাই, তা না হলে, সারাদেশে আমরা মানববন্ধন চালিয়ে যাবো।#

মোহাম্মদ জাকির লস্কর
মুন্সীগঞ্জ থেকে

ইসোয়াতিনি আঃ লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক সাবেক ছাত্রনেতা মাসুদ রানা

ইয়ামিন কাদের বলেন

বিশেষ প্রতিনিধি

গত ১৮ই মে ২০২৪ সর্ব অফ্রিকার আওয়ামী লীগের অন্যতম শাখা কমিটির বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ ইসোয়াতিনি শাখা কমিটির গঠন সংক্রান্ত বিষয়ে ইসোয়াতিনি আওয়ামী লীগের সম্মানিত উপদেষ্টামন্ডলীর উপস্থিতিতে এবং সর্ব অফ্রিকার আওয়ামী লীগের আহবায়কের নেতৃত্বে একটি বর্ধিত সভা অনুষ্ঠিত হয়।এতে

ইসোয়াতিনি আওয়ামী লীগের উপস্থিত উপদেষ্টামন্ডলীর কর্তৃক প্রেরিত ভোটের মাধ্যমে আগামী তিন বছরের জন্য ইসোয়াতিনি আওয়ামী লীগের সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদক চুড়ান্ত ভাবে নির্বাচিত করা হয়।পরবর্তীতে
১৪ই জুন পূর্ণাঙ্গ কমিটি ঘোষণা করা হয়।এতে ইসোয়াতিনি আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক নির্বাচিত হোন
বাংলাদেশ ছাত্রলীগ, ঢাকা মহানগর দক্ষিণের সাবেক সহ-সভাপতি ওরামপুরা থানা ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদক জনাব এস.এম.মাসুদ রানা।
ইসোয়াতিনি আওয়ামী লীগের পূর্ণাঙ্গ কমিটি অনুমোদন ও ঘোষণা করেন ডা: লুৎফর রহমান রুপক আহবায়ক সর্ব আফ্রিকা আওয়ামী লীগ ও আব্দুল আউয়াল তানসেন যুগ্ন আহবায়ক সর্ব আফ্রিকা আওয়ামী লীগ

1 2 3 4